করোনা টিকার ট্যাবলেট! মানবদেহে টেস্ট শুরু হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে

সংবাদ সারাক্ষণ
সম্পাদনাঃ ১৫ মে ২০২০ - ০১:০৩:৩৩ পিএম

করোনার ভ্যাকসিন এখন ইনজেকশনের পরিবর্তে ট্যাবলেটের মাধ্যমে মানবদেহে টেস্ট করা হবে। এমন অভিনব চিকিৎসা পদ্ধতির উদ্ভাবন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ইমিউনোলোজিস্ট সিন টকার। আটজনের একটি দল চারমাসের বেশি সময় ধরে গবেষণার পর এই ট্যাবলেটের খোঁজ পেয়েছে।

 ইমিউনোলোজিস্ট শন টকার বলছেন, ক্যালিফোর্নিয়ার ল্যাবে কিছু ভ্যাকসিনের পরীক্ষা হয়েছে যার মধ্যে কিছু জুলাইয়ের শুরুতে মানব দেহে পরীক্ষা করা হবে। ইনজেকশনের পরিবর্তে ট্যাবলেট দেওয়া হবে। তিনি বলেন আমাদের বিশ্বাস এ বছরের শেষের দিকে বা সামনে বছরের প্রথমে মিলিয়ন ডোজ ভ্যাকসিন উৎপাদন হবে।

টকার (৫২) ভ্যাকসার্টের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা – একটি বায়োটেক সংস্থা যা মৌখিক রিকম্বিন্যান্ট ভ্যাকসিনগুলির বিকাশে বিশেষজ্ঞ। গেল জানুয়ারী থেকে করোনার টিকার জন্য আট জনের একটি গ্রুপে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। ভ্যাকসিনগুলি একটি মৃত অ্যাডিনোভাইরাস থেকে তৈরি করা হয় যা সাধারণ সর্দি-কাশির অন্যতম কারণ। অ্যাডিনোভাইরাস গুলো খুবই সাধারণ যা ১০ শতাংশ শিশুদের অসুস্থতার জন্য দায়ী।

এর ফলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে এবং ফুসফুসে যে জায়গায় সংক্রমণের সম্ভাবনা আছে সেখানে অ্যান্টিবডি ও টি সেলগুলো রোগ প্রতিরোধ করবে।

সর্বশেষ